অভ্রের অ-আ

——————————————————————————————————————————————————————–
বাংলা লিখতে হলে প্রথমে “অভ্র কি-বোর্ড” ডাউনলোড করতে হবে।
অভ্রের ডাউনলোড লিংকঃ http://www.omicronlab.com/avro-keyboard-download.html
এই পেইজের “Download Avro Keyboard from the following mirror sites:” লাইনের নিচে যেকোনো একটি মিরর থেকেই অভ্র ডাউনলোড করা যাবে।

ডাউনলোড করে ইন্সটল করার পর বাংলা লিখতে “F12” চাপতে হবে। আবার ইংরেজি লিখতে হলে আবার “F12” চাপুন।
———————————————————————————————————————————————————————
যারা নতুন অভ্র ব্যবহার করছে, তাদের জন্য খুব হাল্কার উপর কিছু টিপ্স দিতে চাই। মনে রাখতে হবে, অভ্র কেইস সেন্সেটিভ, মানে ইংরেজি বড় হাতের T, আর ছোটো হাতের t লিখলে ভিন্ন আউটপুট পাওয়া যাবে।

যারা এক্কেবারে নতুন তাদের জন্য কিছু বেসিকঃ
ক=k খ=kh চ=c ছ=ch ত=t ট=T থ=th ঠ=Th
স=s শ=sh ষ=Sh গ=g ঘ=gh জ=j ঝ=jh য=z
ই-কার=i ঈ-কার=I ঋ-কার=rri অ=o ও=O(বড় হাতের) হ-সন্ত=,, (পরপর দুটি কমা)

সম্পূর্ন লিস্ট আভ্রের সাথেই পাওয়া যায়, তাই কনফিউশন হতে পারে এমন বর্ণগুলোই শুধু লিখলাম। হ-সন্ত লেখার ব্যাপারটা আমাকে অনেকদিন ভোগাইসে। আগেতো মাউস দিয়ে হ-সন্ত লিখতাম, পরে বুঝলাম দুবার কমা (,) লিখলেই হ-সন্ত হয়ে যায়। আমার মনে হয় কিছু যুক্তাক্ষরের নমুনা দেখলেই লেখার ব্যাপারে একটা ভাল ধারনা পাওয়া যাবে।

অভ্র (ফোনেটিক) ব্যবহার করে কিছু যুক্তাক্ষর এবং লেখার নমুনাঃ
যুক্তাক্ষর=juktakkhor সুন্দর=sundor অভ্র=ovro পৃথিবী=prrithibI
ফিজিক্স=fijix নিউক্লিয়াস=niukliyas শক্তি=shokti ব্যঞ্জনবর্ণ=bynjonborrNo
বিস্ময়=bismoy *আইনস্টাইন=ainosTain অত্যুক্তি=otyukti দূর্ভিক্ষ=dUrrvikkho
কৌনিক=kOUnik সফট্ওয়্যার=sofT,,Oyyar শ্রোয়েডিংগার= shrOyeDinggar
বিশ্বাস=bishwas পদ্মা=padma আশ্চর্য=ashcorrzo

কেউ যদি আইনস্টাইন কে “ainosTain” না লিখে “ainsTain” লেখে তাহলে দেখা যাবে “আইন্সটাইন”. n এবং s এর মাঝখানে o দেয়া হয়েছে ন এবং স যেন যুক্ত না হয়ে যায়। এই কাজটা একটু ট্রিকি। যদি দেখা যায় অপ্রয়োজনিয় কোথাও দুটি ব্যঞ্জনবর্ণ নিজে থেকেই যুক্ত হয়ে যাচ্ছে, তাহলে ওই দুটির মাঝে o (ছোটো হাতের) ব্যবহার করলেই ল্যাঠা চুকে যাবে।

কিছুক্ষেত্রে বিশেষ করে, ৎ লিখতে “এক্সেন্ট-কী(`)” ব্যবহার করতেই হয়। এই কী-টা সাধারনত থাকে কী-বর্ডের বাম দিকের কোনায়, “১-কী” এর বামে। ৎ লিখতে “এক্সেন্ট-কী(`)” চাপতে হবে দুবার।
উদাহরনঃ বৃহৎ=brrihot“ হঠাৎ=hoThat“

চন্দ্রবিন্দু পেতে চাইলে, ব্যবহার করতে হবে ^ (Shift 6-কী)
উদাহরনঃ খোঁজ=khO^j

আরও কিছু সহজ কিন্তু ট্রিকি শব্দঃএকই=ekoi লিখতে হবে, eki লিখলে হবে একিএকটা=ekoTa লিখতে হবে, ekTa লিখলে হবে এক্টা

(অনেকে o এর জায়গায় “এক্সেন্ট-কী(`)” ব্যবহার করে ।)

তাছাড়া, কি-বোর্ড দিয়ে বিশেষ কিছু লিখতে সমস্যায় পরলে মাউস দিয়ে লেখার অপশনতো আছেই। অভ্রের নতুন ভার্শনে এখন কিছু লিখলে সম্ভ্যাব্য বানানের সাজেশন আসে। এতে বাংলা লেখাটা যেমন অনেক সহজ হয়েছে তেমনি সহজ হয়েছে সঠিক বানান লেখাটাও। এই সব কিছুই আরো বিশদ বিবরনসহ অভ্রের ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে। তাছাড়া, অভ্রের টুলবারের হেল্প বাটনে গেলে ইউজার ম্যানুয়াল পাওয়া যাবে। অভ্রের উদ্ভাবক মেহেদী হাসান কে আন্তরিক ধন্যবাদ, এমন একটা সুন্দর সফট্ওয়্যার আমাদের মত পাব্লিকদের পুরাই মাগনা দিতে অক্লান্ত পরিশ্রম করার জন্য।

দেশের বাইরে থাকায় একটা বিরল ব্যপার দেখার সুযোগ হয়েছে। এখানে আমার সাথে কিছু চাইনিজ পড়ে। একদিন এক চাইনিজ ফ্রেন্ডের ল্যাপটপে ঢুকে দেখি, কিচ্ছুই বুঝি না। সব কিছু চাইনিজ ভাষায়। প্রতিটা আইকন, প্রতিটা ফোল্ডার, এমনকি প্রতিটা ফাইলের নাম পর্যন্ত লেখা চাইনিজ ভাষায়!! পরে জানলাম প্রায় সবগুলো চাইনিজের ল্যাপটপেরই একই দশা। আমি অবশ্য এতটা চাই না। আমি চাই আমরা যদি কিছু বাংলায় লিখি তা যেন লিখি বাংলা বর্ণ দিয়ে। আর ইংরেজি লিখলে তা ইংরেজি বর্ণে। কাউকে আর ইংরেজি বর্ণ দিয়ে বাংলা লিখতে হবে না… এমন দিনের অপেক্ষায় আছি।

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: